ব্রেকিং নিউজঃ
 
Mon, 20 Nov, 2017

 

 

 

 

     
 

বগুড়ায় অপহৃত গণপূর্ত কর্মচারী উদ্ধার, আটক ৫

বাংলাদেশ বার্তা ২৪.কম/ বগুড়া/ ৬ মে/ বগুড়ায় গণপূর্ত বিভাগের এক কর্মচারীকে সুন্দরী নারী দিয়ে অপহরণ করে চাঁদা দাবির ঘটনায় পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় অপহরনকারীদের কবল থেকে ওই সরকারি কর্মচারীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে শহরের মালগ্রাম থেকে তাদের আটক করা হয়। বুধবার

বিকেলে বগুড়ার পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এতথ্য জানানো হয়। পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সুইটি নামের এক সুন্দরী নারীর সহযোগিতায়বগুড়া গণপূর্ত বিভাগের কার্য সহকারী আব্দুল মান্নানকে কৌশলে শহরেরমালগ্রামে ডেকে নেয় একটি চক্র। এরপর মান্নানের মোবাইল নম্বর থেকে তার মেয়েরমোবাইল নম্বরে ফোন করে জানায় আব্দুল মান্নানকে অপহরণ করা হয়েছে। মুক্তিরবিনিময়ে আট লাখ টাকা দাবি করে অপহরণকারীরা। এঘটনায় আব্দুল মান্নানের ভাই আবু সাঈদ খান সদর থানায় অভিযোগ করেন। এরপরঅপহৃত ব্যক্তিকে উদ্ধারে গোয়েন্দা পুলিশের ওসি আমিরুল ইসলামের নেতৃত্বেএকটি টিম মাঠে নামে। গোয়েন্দা টিম মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে অপহরণকারী চক্রের লিডারমালগ্রাম দক্ষিনপাড়ার আব্দুল বাসেতের ছেলে ও প্রাক্তন যুবলীগ নেতা সোহেলআহম্মেদসহ (৩৭) পাঁচজনকে শহরের মালগ্রাম দক্ষিণপাড়া থেকে আটক করে। সোহেল যুবলীগ মালগ্রাম আঞ্চলিক কমিটির প্রাক্তন সাধারন সম্পাদক। আটকঅন্যরা হলো- একই এলাকার লাল মিয়ার ছেলে রকি (২৬), খলিলুর রহমানের ছেলেআব্দুল মোমিন (২৭), মৃত ইউনুছের ছেলে জুয়েল (৩২) এবং জুয়েলের বোন সুইটি (৩৫)। এরা সবাই যুবলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত বলে স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে। বগুড়ার পুলিশ সুপার মোজাম্মেল হক পিপিএম জানান, এই চক্রটি দীর্ঘ দিন ধরেসুন্দরী নারী দিয়ে প্রেমের ফাঁদ পেতে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারি ওব্যবসায়ীদের কৌশল ডেকে নেয়। এরপর তাদের জিম্মি করে মোটা অংকের টাকা দাবিকরে আসছিল। এর আগে এক পুলিশ কনস্টেবলও এই চক্রের ফাঁদে পড়েছিলেন।