ব্রেকিং নিউজঃ
 
Thu, 18 Jan, 2018

 

 

 

 

     
 

রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ভাঙচুর: আহত ৪০

বাংলাদেশ বার্তা ২৪.কম/ গোপালগঞ্জ/ ২২ মে/ গোপালগঞ্জেরটুঙ্গিপাড়ায় এক মহিলা রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে টুঙ্গিপাড়া উপজেলাস্বাস্থ্য কেন্দ্রে ব্যাপক হামলা ও ভাঙচুর করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুরআড়াইটার দিকে স্থানীয়রা এ হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটায়। এসময় টুঙ্গিপাড়াউপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: পবিত্র

কুমার কুন্ডু, নার্স কাকতি লতা পাল ও এক পুলিশ সদস্যসহ অন্ত:ত ৪০ জন আহত হয়েছেন। এলাকাবাসীজানায়, গত ১৪ মে তারিখে টুঙ্গিপাড়া মিত্রডাঙ্গা গ্রামের মনা ভারতী (২২)হিন্দু ধর্ম পরিত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে খাদিজাতুল কোবরা নাম ধারণকরে। তিনি অসুস্থ হয়ে গত ১৯ মে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তিহন। শুক্রবার সকালে নার্স কাকতি তাকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করায় ভৎসনা করে।পরে তাকে একটি ইনজেকশন পুশ করলে কিছুক্ষণের মধ্যে তিনি সেখানে মারা যান। এঘটনা দ্রুত চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে হাজারো এলাকাবাসী উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে এসে জড়ো হয় এবং একপর্যায়ে তারা ব্যাপক তাণ্ডব চালায়। ঘণ্টাব্যাপী এতাণ্ডবে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের নীচতলা থেকে তৃতীয় তলা পর্যন্তজানালা-দরজা, টেবিল-চেয়ার ও অন্যান্য আসবাবপত্র তছনছ হয়ে যায়। এসময় ডা:পবিত্র কুমার কুন্ডু, নার্স কাকতি লতা পাল ও এক পুলিশ সদস্যসহ অন্ত:ত ৪০ জনআহত হন। পরে পুলিশ এসে টিয়ার-সেল ও রাবার-বুলেট নিক্ষেপ করে সবাইকেছত্রভঙ্গ করে দেয় এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। এ ঘটনার পরপরই ভর্তিঅন্যান্য রোগীরা হাসপাতাল ছেড়ে যায়।খবর পেয়ে পরে জেলা প্রশাসক মো.খলিলুর রহমান ও পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এসময় পুলিশ সুপার বলেছেন, ঘটনার সঙ্গে  যারা জড়িত তদন্ত শেষে তাদের বিরুদ্ধেআইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।এদিকে এ ঘটনাকে ন্যক্কারজনক বলে উল্লেখকরে বিএমএ গোপালগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি ডা: আবিদ হোসেন বলেছেন, শনিবার থেকেশুধুমাত্র জরুরী বিভাগ ছাড়া সব ধরণের চিকিৎসা সেবা বন্ধ থাকবে।

সংবাদ শিরোনাম